মালয়েশিয়ার অভিবাসী কর্মীদের ওপর চলা নিপীড়নমূলক আচরণ নিয়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আলজাজিরায় প্রচারিত একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে কথা বলায় গ্রেফতার বাংলাদেশি তরুণ মো. রায়হান কবিরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১৪ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে দেশটির ইমিগ্রেশন বিভাগ।

সে দেশের সংবাদমাধ্যম টেকডিপস.কম স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমির হামজা জয়নুদ্দিনকে উদ্ধৃত করে এ তথ্য জানিয়েছে। শনিবার দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমির হামজা জয়নুদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, ‘তদন্তে সহায়তা করার জন্য শনিবার থেকে তার ১৪ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে এবং আমরা যথাযথ তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবো।’ 

এদিকে ইমিগ্রেশন বিভাগের মহাপরিচালক সাংবাদিকদের জানান, ডকুমেন্টেশন এবং টিকিট ক্রয়ের প্রক্রিয়া শেষ না হওয়া পর্যন্ত রায়হানকে অভিবাসন ডিটেনশন ডিপোতে রাখা হবে। ২৫ বছর বয়সী রায়হানকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে দিতে দুই থেকে তিন সপ্তাহ লাগতে পারে।

প্রবাসী বাংলাদেশী
মালয়েশিয়ার এমন নির্যাতনের বিরুদ্ধেই কথা বলেছিলেন রায়হান কবির।

উল্লেখ্য, গেল শুক্রবার বিকালে রাজধানীর একটি কনডোমোনিয়াম থেকে পুলিশ ও ইমিগ্ৰেশনের স্পেশাল ব্রাঞ্চের যৌথ অভিযানে মো. রায়হান কবিরকে গ্রেফতার করা হয়। মালয়েশিয়ায় বসবাসরত অভিবাসীদের প্রতি দেশটির আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী কর্তৃক চলতি লকডাউনে বৈষম্যমূলক ও বর্ণবাদী আচরণ করা হয়েছে বলে ‘লকড আপ ইন মালয়েশিয়া’স লকডাউন’ শিরোনামে ২৫ মিনিটের একটি ডকুমেন্টারি কয়েক সপ্তাহ আগে আল-জাজিরা টেলিভিশনে প্রকাশিত হলে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয় মালয়েশিয়াজুড়ে।

ওই ডকুমেন্টারির জন্য সাক্ষাৎকার দেওয়ায় ২৪ জুলাই (শুক্রবার) বিকালে রাজধানীর একটি কনডোমোনিয়াম থেকে পুলিশ ও ইমিগ্রেশনের স্পেশাল ব্রাঞ্চের যৌথ অভিযানে মো. রায়হান কবিরকে গ্রেফতার করা হয়।

আরও পড়ুন-