ভারতের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতা, ভারতের প্রতিরক্ষা, রাষ্ট্রীয় সুরক্ষা এবং জনসাধারণের শৃঙ্খলা রক্ষার প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা হিসেবে টিকটক, ইউসি ব্রাউজার সহ জনপ্রিয় ৫৯ চাইনিজ এপস নিষিদ্ধ করেছে ভারত সরকার।

ইন্ডিয়া টাইমসে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, টিকটক, শেয়ারইট, ইউসি ব্রাউজার, লাইকি, ইউচ্যাট, বিগো লাইভ ছাড়াও নিষিদ্ধ এপসের তালিকায় রয়েছে ক্লাব ফ্যাক্টরি, এমআই কমিউনিটি, ভাইরাস ক্লিনার, এমআই ভিডিও কল-শাওমি, হেলো, বিউটি প্লাস, ইউ ক্যাম মেকআপ, ক্যাম স্ক্যানার, সুইট সেলফি, প্যারালেল স্পেস, ইউসি নিউজ, উই মিট, ডিইউ রেকর্ডার, মোবাইল লেজেন্ডস, ওন্ডার ক্যামেরা।

সোমবার ভারতের কেন্দ্রীয় তথ্য-প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় দেশটির তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৬৯-এ ধারার ক্ষমতা প্রয়োগ করে ৫৯টি চীনা অ্যাপস নিষিদ্ধের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে।

ভারতের তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ১৩০ কোটি ভারতবাসীর তথ্য সুরক্ষিত রাখার প্রশ্নে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এন্ড্রয়েড ও আইওএস প্লাটফর্মে মোবাইল এপসকে অপব্যাবহার করে গ্রাহকদের তথ্য চুরি করা হচ্ছে বলে বেশ কিছু অভিযোগ জমা পড়েছিল। এরপরই এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে জানা যাচ্ছে। লাদাখে সীমান্ত সংঘাতের আবহে চীনা এপস নিষিদ্ধ করার মতো সিদ্ধান্ত উল্লেখযোগ্য বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহলের একাংশ।