বিমান

করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে ফের ফ্লাইট বাতিল করেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। আগামী ৩০ জুলাই পর্যন্ত লন্ডন ছাড়া অন্য কোন আন্তর্জাতিক রুটের জন্য বিমান।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে মার্চের পর গোটা বিশ্বে আকাশপথ সীমিত হয়ে আসে। মহামারীর প্রাদুর্ভাবে তিন মাস বন্ধ রাখার পর লকডাউন শিথিল হলে বিমান গত ২১ জুন লন্ডন ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করে। গত ১ জুলাই জানিয়েছিল, ৬ জুলাই থেকে তারা দুবাই ও আবুধাবিতেও নিয়মিত ফ্লাইট চালু করছে। কিন্তু এর মধ্যেই আবারও ফ্লাইট বাতিল করলো বিমান। রোববার (৬ জুলাই) রাষ্ট্রায়ত্ত বিমান সংস্থাটির ওয়েবসাইটে এই তথ্য দেওয়া হয়েছে।

রোববারের বিমান জানায়, আমিরাতের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ ১৬ জুলাই পর্যন্ত ফ্লাইট পরিচালনার সাময়িক সিদ্ধান্ত দিয়েছিল। সে অনুযায়ী বিমান ৬-১৬ জুলাই পর্যন্ত ফ্লাইট পরিচালনার প্রস্তুতি গ্রহণ করে। কিন্তু ‘অনিবার্য কারণবশত’ এই ফ্লাইটসমুহ পরিচালনা স্থগিত করা হয়েছে। ৬ জুলাই থেকে ১৬ জুলাই দুবাই ও আবুধাবি ফ্লাইটের বুকিং নিয়েছিল বিমান।

এখন এই যাত্রীদের বিমান বিশেষ ব্যবস্থায় পরিবহনের ব্যবস্থা নেবে বলে জানানো হয়েছে। যাত্রীদের তা জানানোও হচ্ছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়। বিধিনিষেধ শিথিলের পর গত ১ জুন আভ্যন্তরীণ রুটে বিমান চলাচল শুরু হলেও বিমানের যাত্রী মেলেনি, যার ফলে আভ্যন্তরীণ রুটে নিয়মিত ফ্লাইটগুলোও চালাতে পারেনি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থাটি। গত ২১ জুন বিমান লন্ডনে সপ্তাহে একটি ফ্লাইট পরিচালনার কথা বললেও যাত্রী টানতে পারেনি।

আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট বাতিলের সিদ্ধান্তের বিষয়ে বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মোকাব্বির হোসেন জানান, “ম্যানচেস্টার, সিঙ্গাপুর, কুয়ালালামপুর রুটের ফ্লাইট চালুর ঘোষণা নেই বলে সেগুলো বাতিল। চালু হলে সেগুলোর জন্য ঘোষনা আসবে। ওইসব গন্তব্যই তো অনিশ্চিত।”

সর্বশেষ শনিবার বিমান জানিয়েছিল, চলমান সঙ্কটের কারণে দুবাই, আবুধাবি ও লন্ডন ছাড়া সব আন্তর্জাতিক ফ্লাইট পরিচালনা ৩০ জুলাই পর্যন্ত বাতিল করা হয়েছে। তবে এই তিন আন্তর্জাতিক রুটের বাইরে অন্য কোনো রুটে ফ্লাইট পরিচালনার কথাও আনুষ্ঠানিকভাবে জানায়নি বিমান।

আরও পড়ুন-