রুবেল হোসাইন

মহামারি করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে যখন থমকে আছে পুরো পৃথিবী তখন আশার আলো দেখাচ্ছে বাংলাদেশ। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে তাল মিলিয়ে দেশে প্রথমবারের মতো করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দাবি তুলেছে গ্লোব বায়োটেক। 

এরইমধ্যে বড় কোনো ধরনের প্রতিবন্ধকতার শিকার না হলে ট্রায়াল শেষে আগামী ডিসেম্বরেই এই ভ্যাকসিন বাজারে আনতে পারবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন প্রতিষ্ঠানটির রিসার্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ডিপার্টমেন্টের প্রধান ড. আসিফ মাহমুদ। 

সম্প্রতি গ্লোব বায়োটেক লিমিটেডের রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট বিভাগের এই অ্যাসিসটেন্ট ম্যানেজার অ্যান্ড ইনচার্জ দাবি করেছেন, খরগোশের দেহে সফলভাবে পরীক্ষা করা হয়েছে এ ভ্যাকসিন। বাজারে উন্মুক্ত করতে আরও কিছুদিন সময় লাগবে তার।

বরাবরের মতোই এ খবরে দেখা যাচ্ছে জনসাধারণের মিশ্র প্রতিক্রিয়া। বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একপক্ষ যেমন সাধুবাদ দিচ্ছেন ড. আসিফ মাহমুদকে, তেমনি আরেকপক্ষ আবার মেতে উঠেছে হাসি-ঠাট্টায়। তারা যেন বিশ্বাসই করতে রাজি নয়, বাংলাদেশের সম্ভব করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কার।  তার জন্য ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের পেসার রুবেল হোসেন। 

 ড. আসিফ মাহমুদের ছবি পোস্ট করে নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে লিখেছেন, ‘আসিফ মাহমুদ ভাই যখন বলছিলেন যে আমরা করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কার করেছি, কথাটি বলতে বলতেই উনার কান্না চলে আসছে!’

রুবেলে আরও লিখেছেন, ‘বাংলাদেশের একটি প্রতিষ্ঠান সাহস নিয়ে দাবি তো করতে পারল যে তারা আবিষ্কার করছে, সফল হোক ব্যর্থ হোক সেটা পরের বিষয়। অথচ আমরা একটা অভিনন্দন পর্যন্ত জানালাম না। চীন বা আমেরিকা এই দাবি করলে এই আমরাই আবার অভিনন্দন অভিনন্দন জানিয়ে বাংলার আকাশ বাতাস মাতিয়ে দিতাম, আসলেই আমরা এক ভণ্ড জাতি।’ 

‘বিন্দু পরিমাণ কৃতজ্ঞতাবোধ আমাদের নেই, এই জন্যে এ দেশে জ্ঞানী মানুষ জন্মায় না কারণ জ্ঞানীদের কদর এ দেশে নেই। অনেকে হাসাহাসি করছে, ট্রলে মেতে উঠেছে যে বাংলাদেশ থেকে নাকি করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কার করবে! চেষ্টা তো করছে তারা, দেখা যাক না কী হয়! একটু অভিনন্দন তো তারাও পেতে পারেন! এরাই দেশের রিয়েল হিরো।’ 

আরও পড়ুন-