চট্টগ্রামে আত্মীয়ের বাসায় বেড়াতে এসে এক তরুণী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল রোববার রাতে নগরীর আগ্রাবাদে সুপারিওয়ালা পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় সহযোগিতা করার অভিযোগে দুজনকে আটক করা হয়েছে। তাঁরা হলেন, নুরী আক্তার ও তাঁর স্বামী মোহাম্মদ অন্তর। আজ সোমবার ভোরে একই এলাকা থেকে তাঁদের আটক করে ডবলমুরিং থানা পুলিশ। তবে মূল অভিযুক্ত পলাতক রয়েছে। তাকে আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ডবলমুরিং থানার এসআই নুরুল ইসলাম বলেন, ভিকটিম তরুণী ফেনী থেকে চট্টগ্রামের আগ্রাবাদে তার চাচার বাসায় বেড়াতে আসেন। তার চাচাতো বোনের এক বান্ধবী ওই তরুণীকে গতকাল রাত ৮টার দিকে সুপারিওয়ালা পাড়ায় বাসায় বেড়াতে নিয়ে আসেন। পাশের বাসায় থাকেন চান্দু মিয়া। একপর্যায়ে ওই তরুণীকে বাসায় নিয়ে ধর্ষণ করেন চান্দু মিয়া।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় সহযোগিতা করার অভিযোগে সোমবার ভোরে ওই এলাকা থেকে দুজনকে আটক করা হয়েছে। তারা হলেন- নুরী আক্তার ও তার স্বামী মোহাম্মদ অন্তর।

এসআই নুরুল ইসলাম বলেন, ঘটনার পর থেকে চান্দু মিয়া পলাতক রয়েছে। তাকে আটক করার চেষ্টা চলছে।

ওই তরুণীকে রাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মেডিকেল রিপোর্ট পাওয়ার পর মামলা করা হবে বলে জানান তিনি।