করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যাক্তির মৃত লাশ যখন দাফন করতে পরিবার বা আত্বীয় স্বজনের কেউ এগিয়ে আসেনি তখন, সেই মৃত ব্যাক্তির লাশ কাঁদে তুলে নিয়েছেন আবু কাউছার অনিকের গঠিত ‘ছাত্রলীগের ওরা ৪১ জন’ এর সদস্যরা। এভাবে এক এক করে ১৪ জনের কাফন-দাফনের ব্যবস্থা করেছেন তারা।

শনিবার (৪ জুলাই) কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আবু কাউছার অনিক এর করোনা নমুনায় পরিক্ষায় রিপোর্ট পজিটিভ আসে। কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

আবু কাউছার অনিকসহ তার টিমের সদস্যরা হাসপাতালের পরিচ্ছন্ন কর্মী করোনা আক্রান্ত, হাতে তুলে নিয়েছেন ঝাড়ু। এছাড়া দুঃস্থ মানুষকে খাবার পৌঁছাতে গড়েছেন ‘হ্যালো ছাত্রলীগ’ টিম, করোনা রোগীদের চিকিৎসায় মেডিকেল টিম, কৃষকের ধান কেটেছেন, করোনা রোগীদের জন্য করেছেন ‘ব্লাড ব্যাংক’।

'হ্যালো ছাত্রলীগ'র উদ্যোক্তা অনিক করোনায় আক্রান্ত 1
হ্যালো ছাত্রলীগের উদ্যোক্তা অনিকের টিম কাজ করছে লাশ দাফনে ।

এছাড়া দেবিদ্বার উপজেলা বিএনপির সভাপতির লাশ দাফন করে মানুষের প্রশংসা কুড়িয়েছিলেন কুমিল্লা উত্তর জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আবু কাউছার অনিকসহ তার টিম ‘ছাত্রলীগের ওরা ৪১ জন’। এবার তিনি নিজেই করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

আবু কাউছার অনিক জানান, ‘আজ আমার করোনা রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। এতে আমার বিন্দু মাত্র কষ্ট নেই। সৃষ্টিকর্তার ইচ্ছার উপর কারো হাত নেই। কিন্তু এখন আমার খুব কষ্ট হচ্ছে, আমার সাথের সহযোদ্বা ভাইদের জন্য। যাদের যখন সেচ্ছাসেবার জন্য ঢেকেছি, তারা বিনা বাক্যে হাজির হয়েছে। তাদের কথা ভেবে চোখের পানি ধরে রাখতে পারছি না। আল্লাহ যেন আমার ভাইদের সুস্থ্য রাখে। আমাদের কার্যক্রম গুলো চলবে ইনশাআল্লাহ। দোয়া করবেন যেন দ্রুত সুস্থ হয়ে আবার মানবতার সেবায় আপনাদের যোগ দিতে পারি। আমি আপনাদের সবার কাছে দোয়া চাই।

দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আহমেদ কবির জানান, আবু কাউছার অনিকের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। তিনি বাসায় অবস্থান করে চিকিৎসা নিচ্ছেন। 

আরও পড়ুন-