আমির হোসেন আমু

দিন কয়েক আগে গুজব চাউর হয়েছিলো, শেষ পর্যন্ত গুজবই সত্য হলো। আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের সমন্বয়ক ও মুখপাত্রের দায়িত্ব পেয়েছেন দলটির প্রবীণ নেতা ও উপদেষ্টা আমির হোসেন আমু।

এতদিন ১৪ দলীয় জোটের সমন্বয়কের দায়িত্বে ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সাজেদা চৌধুরী। নির্বাচনী এই জোটের মুখপাত্রের দায়িত্বে ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রয়াত নেতা সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

বুধবার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তার বসায় এক সংবাদ সম্মেলনে ১৪ দলের সমন্বয়ক এবং মুখপাত্র হিসেবে আমির হোসেন আমুর নাম ঘোষণা করেন।

আওয়ামী লীগের দ্বিতীয় শীর্ষ নেতা ওবায়েদুল কাদের বলেন, “১৪ দলের শরিক দলগুলোর নেতৃবৃন্দের সম্মতিক্রমে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা দলের প্রবীণ নেতা ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমুকে ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্রের দায়িত্ব দিয়েছেন । আমির হোসেন আমু তার দীর্ঘ রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা, দক্ষতা ও প্রজ্ঞা দিয়ে ১৪ দলের সমন্বয়কের দায়িত্ব পালনে যথাযথ ভূমিকা পালন করবেন বলে নেত্রী আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।”

মুক্তিযুদ্ধের সময় আমু ছিলেন বরিশাল, খুলনা, পটুয়াখালী, যশোর ও ফরিদপুর জেলার মুজিব বাহিনীর প্রধান। ১৯৭৮-১৯৮৬ সালে আমির হোসেন আমু যুবলীগের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯২ সালে তাকে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য করে নেওয়া হয়। বর্ত্মানে তিনি প্রাচীন এই দলটির উপদেষ্টা সদস্য হিসেবে আছেন।

ষাটের দশকের ছাত্রলীগ নেতা আমির হোসেন আমু ১৯৭০ সালের নির্বাচনে বরিশাল থেকে প্রাদশিক পরিষদের সদস্য হয়েছিলেন। স্বাধীনতার পর চার বার এমপি হওয়া এই আওয়ামী লীগ নেতা বর্তমানে ঝালকাঠি-২ আসনের প্রতিনিধিত্ব করছেন।

আরও পড়ুন-