জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তাঁর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনাকে তীব্রভাবে কটাক্ষ করে এবং উগ্র-সাম্প্রদায়িকতাসহ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব লেখক ভট্টাচার্য্যকে সাম্প্রদায়িকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করায় ‘জামাল মিয়া’র বিরুদ্ধে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ(ডিএমপি) এর সাইবার ক্রাইম ইউনিট এবং শাহবাগ থানায় পৃথক দুটি অভিযোগ দায়ের করেছেন এই ছাত্রলীগের নেতা।

অভিযোগে তিনি জামাল মিয়ার বিরুদ্ধে তার কিছু নিন্দাসূচক মন্তব্যের উল্লেখ করে বলেছেন, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, জননেত্রী শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য্য কে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হেয় করার অপচেষ্টা করা হয়েছে, শুধু তাই নয় ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত হানে এমন সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক মন্তব্যের কথাও উল্লেখ করেন শেখ আব্দুল্লাহ। এই বিষয়ে কিছু স্ক্রিনশট এর প্রিন্টেড কপি, ডিএমপির সহকারী কমিশনার (এসি সাইবার), জনাব ধ্রুব জ্যোতির্ময় গোপ এর নিকটে প্রদান করে এসেছেন। এসময়ে তার সাথে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক, দিদারুল আলম ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতা সৌরভ দাস।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শেখ আব্দুল্লাহ জনতারমুখ’কে জানান, ‘সময়ের সাহসী সন্তানেরাই ছাত্রলীগ করে, আর ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা কখোনোই অন্যায়ের সাথে আপোষ করে না, আর ভবিষ্যতে যাতে এমন গর্হিত অপরাধ আর কেউ না করতে পারে সেই জন্যই আমার এই ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা।’

তিনি আরো যোগ করেন, ‘আশা করছি দ্রুত আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করার মাধ্যমে প্রশাসন এই অপরাধীকে শাস্তি প্রদান করবে।’