করোনা

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশী ঝুঁকিতে বয়স্করা, মৃত্যুর হারও বেশী ষাট ঊর্ধ্ব বয়সের মানুষের। কিন্তু ইথিওপিয়ার শতবর্ষী এক বৃদ্ধ করোনা আক্রান্ত হয়েও সেরে উঠেছেন। বৃদ্ধের করোনা জয়কে ‘অবিশ্বাস্য’ বলছেন তাঁর চিকিৎসক।

করোনাকে হারিয়ে দেয়া বৃদ্ধের নাম আবা তিলাহুন ওল্দেমাইকেল। তাঁর বয়স ১১৪। পরিবারের দেয়া বয়সের তথ্য যদি ঠিক হয় তাহলে তিনিই এখন পৃথিবীর সবচেয়ে বয়স্ক জীবিত ব্যক্তি। তবে এটি নিশ্চিত করার মতো কোনো ‘বার্থ সার্টিফিকেট’ নেই তাঁর।

শতবর্ষী এই বৃদ্ধের দেহে কোনো উপসর্গ দেখা দেবার আগেই তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বলে জানিয়েছে বিবিসি। হাসপাতালে ভর্তির চার দিনের মধ্যেই তাঁর শরীরে উপসর্গ দেখা দেয়। এরপর অবস্থার অবনতি হতে থাকে, এবং তাঁকে অক্সিজেন দেওয়া শুরু হয় বলে জানা তাঁর চিকিৎসক হিলুফ। এক সপ্তাহ ধরে তাঁকে অক্সিজেন দেওয়া হয়, সব মিলিয়ে আবা তিলাহুন ১৪ দিন হাসপাতালে ছিলেন।

করোনা জয় করে শতবর্ষী এই বৃদ্ধ বাড়ি ফিরে গেছেন। বাড়িতে তাঁর দেখাশোনা করছেন নাতি। ইথিওপিয়ার রাজধানী আদিস আবাবার যে মহল্লায় আবা তিলাহুন থাকেন, সেখানে এক করোনাভাইরাস টেস্টিং কর্মসূচি চালানোর সময় তাঁর সংক্রমণ ধরা পড়ে।

উল্লেখ্য, ইথিওপিয়ায় করোনাভাইরাস ঠেকাতে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। দেশটিতে পাঁচ হাজারেরও বেশি লোক ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বলে নিশ্চিত করা হয়েছে এবং মারা গেছে ৮১ জন।