মুখে ব্রণ কিংবা ব্রণের দাগের তোয়াক্কা না করেও সুন্দর করে হাসা কিংবা সেলুলয়েডের পর্দায় দুর্দান্ত অভিনয় করা যায় কিনা- এই ধরণের ধারণায় ফুল স্টপ বসিয়ে দিয়েছেন সাই পল্লবী। নিজের সত্যটুকু আড়ালে রাখার বদলে তিনি নিজের সত্যটুকু দেখিয়েছেন, এবং প্রমাণ করেছেন- সত্য সুন্দর।

এই সত্যের জন্য তিনি এতোটাই কঠিন যে- একবার শুধুমাত্র নিজের মূল্যবোধ থেকে সরে আসবেন না বলেই, তিনি ফিরিয়ে দিয়েছিলেন প্রসাধনী কোম্পানির ২ কোটি টাকার বিজ্ঞাপন।

নিজের মুখে ব্রণ ছিলো কিংবা ব্রনের রেখে যাওয়া স্মৃতি চিহ্ন আছে বলেই বোধহয় সাই পল্লবী’কে আমার আরেকটু আপন লাগে। কটু কথা না হলেও, এ ব্রণের জন্য বাঁকা চোখের চাহনি অন্তত সয়েছি জীবনে। মেয়েদের জন্য তো বিষয়টা আরেকটু কঠিনই হবার কথা!

শুভ জন্মদিন 'সত্যই সুন্দর' দেখানো মেয়ে 1

টরেন্টের কল্যানে ভারতের দক্ষিণের সিনেমা ঢুকেছে দেশে, ফেসবুক পাড়ায় এখন সাই পল্লবী বেশ পরিচিত আর জনপ্রিয় নাম। ব্রণ হলে ঘরকুনো হয়ে থাকা ছেলে কিংবা মেয়েদের তিনি দেখিয়ে দিয়েছে, কিভাবে ব্রণ নিয়ে সিনেমা পাড়াও জয় করতে হয়। মেয়েরা, সাই পল্লবীকে দেখো। শিখো।

শুভ জন্মদিন সাই। সত্যই সবচে সুন্দর, এই সত্য জানানোর জন্য অভিবাদ।