করোনা ভাইরাসে থমকে গেছে সারাদেশ। সারা বিশ্বের সাথে পাল্লা দিয়ে জ্যামিতিক হারে দেশব্যাপী বাড়ছে আক্রান্তের হার। এই সংকটময় পরিস্থিতিতে করোনা মোকাবেলায় আর্ত মানবতার সেবায় অনেকেই ভালোবাসার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন। বাংলাদেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ভূমিকা সারাদেশব্যাপী ব্যাপক প্রশংসিত হয়। করোনার প্রাদুর্ভাব দিন দিন যেমন বাড়ছে, তেমন ছাত্রলীগের ব্যতিক্রমী কার্যক্রম নানাভাবে খবরের শিরোনাম হচ্ছে।

সম্প্রতি রমজানের শুরু থেকেই চট্টগ্রাম মহানগরে ফোন কলের মাধ্যমে উপহার নিয়ে মানুষের দ্বারে দ্বারে ছুটে যাচ্ছে মহানগর ছাত্রলীগের অন্যতম সংগঠক নাঈম আশরাফ অভি। করোনা প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই তিন বিভিন্নভাবে জনমানুষের সেবা করে যাচ্ছেন।

আজ চট্টগ্রামসহ উপকূলীয় এলাকায় আবহাওয়া অধিদফতর মহাসাইক্লোন ‘আম্পান’ এর কারণে ১০ নং সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। তবে এই প্রতিকূল অবস্থাতেও থেমে নেই চটগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগ নেতা নাঈম আশরাফ অভির উপহার এর গাড়ি। আজ প্রায় ২০টি পরিবারের মাঝে সর্বোচ্চ গোপনীয়তা রক্ষা করে উপহার পাঠানো হয়।

এই বিষয়ে নাঈম আশরাফ অভি জনতারমুখ’কে বলেন, ‘দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশে ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশে আমি ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে ব্যক্তিগত উদ্দ্যোগে আমার এলাকায় নানা ভাবে মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছি। এই রমজান মাসে আমি ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে গোপনীয়তা রক্ষা করে মানুষের মাঝে নিয়মিত উপহার পাঠিয়েছি। তবে মহাসাইক্লোন ‘আম্পান’ এর কারণে আজ সারাদিন ব্যপক ঝড়বৃষ্টি চলছে, তবে এর মাঝেও ছাত্রলীগ কর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানুষের বাড়ি বাড়িড়ি উপহার পৌঁছে দিয়েছে। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন, আমাদের এই কার্যক্রম চলতে থাকবে।’