করোনাকালীন সঙ্কটের জন্য তৃণমূলের কর্মহীন গরিব ৫০ লক্ষ পরিবারের জন্য ২৫০০ টাকা করে ঈদ উপহার দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তালিকা তৈরী করেছেন স্থানীয় প্রশাসন,ইউনিয়ন চেয়ারম্যান , মেম্বার,শিক্ষক সহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

হবিগঞ্জ, বাগেরহাট এর দুইটি ইউনিয়নসহ কয়েকটি জায়গায় কিছু অনিয়ম ধরা পড়েছে। শতাধিক নামের বিপরীতে ১/২ টি ফোন নাম্বার ব্যবহার করা হয়েছে।অর্থাৎ মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা গেলে সবার টাকা ওই ১/২ টি নম্বরের ব্যক্তিরা পেয়ে যাবেন।দেশে মেম্বার ৪১১৩৯ জন, মহিলা মেম্বার ১৩৭১৩ জন, ইউপি চেয়ারম্যান- ৪৫৭১ জন। এর মধ্যে ৪/৫জন এই অপকর্মটি করেছেন।

প্রথমত: এই অনিয়মটি স্থানীয় পর্যায়ে সরকারই ধরেছে। এমন না যে যাচাই বাছাই শেষে ওরা টাকা পেয়ে গেছে। আর যদি যাচাই বাছাই শেষে এই রকম তালিকা কেন্দ্রে আসেও তাও তাদের টাকা পাবার কোনো সুযোগ নাই।

কারণ নামের সাথে ভোটার আইডি নাম্বার ও মোবাইল নাম্বার অটোমেটেড সিস্টেমে ভেরিফাই করে এরপর টাকা ছাড় দেয়া হচ্ছে।

১৭ কোটি মানুষের দেশে ৪/৫ দুর্নীতিবাজ এরকমটি ঘটাবেনা তা ভাবার কোনো অবকাশ নাই। ঘটনার প্রতিকার হয়েছে কিনা সেটা দেখেন।

এখন আর কোনো চাল চুরির খবর শোনেন ? সব বন্ধ হয়ে গেছে। শেখ হাসিনার উপর আস্থা রাখেন। দেশ ভালো থাকবে, আপনারাও ভাল থাকবেন।

লিখেছেনঃ  আশরাফুল আলম খোকন, প্রধানমন্ত্রীর ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি।