অপূর্ব

লকডাউনের মধ্যেই অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্বর সঙ্গে ৯ বছরের দাম্পত্যজীবনের ‘ইতি’ টানার কথা জানিয়েছেন তার স্ত্রী নাজিয়া হাসান অদিতি।

চলতি বছরের শুরুতেই তাদের বিচ্ছেদে হয়েছে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে বলা হলেও গতকাল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে বিয়ে-বিচ্ছেদের বিষয়টি প্রকাশ্যে আনেন অদিতি। প্রোফাইলের ব্যক্তিগত তথ্য হালনাগাদ করে পারিবারিক সম্পর্কের তথ্য ‘ডিভোর্সড’ করেন। নিজের ফেসবুকে তিনি এও লিখেছেন, ‘স্টপ কলিং মি ভাবি এভরিওয়ান।’

বিচ্ছেদের বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে ফোন ধরেননি অপূর্ব। কয়েকবারের চেষ্টায় নাজিয়াকে পাওয়া যায়। বিচ্ছেদের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমাদের ডিভোর্স হয়ে গেছে। এর বাইরে আমি আর কিছু বলতে চাই না। যদি কখনো মনে করি, তখন বিচ্ছেদের বিষয়ে বিস্তারিত জানাব সবাইকে।’

২০১১ সালের ১৪ জুলাই নাজিয়া হাসান অদিতিকে বিয়ে করেন অপূর্ব। ২০১৪ সালের জুন মাসে আয়াশ নামে এক ছেলের বাবা-মা হন তাঁরা। নাজিয়াকে বিয়ে করার আগে ২০১০ সালে অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব পালিয়ে বিয়ে করেন অভিনেত্রী সাদিয়া জাহান প্রভাকে। ৬ মাসের ব্যবধানে সেই দাম্পত্য সম্পর্কে ইতি টানেন তারা।

আরও পড়ুন-