শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীনে সব প্রতিষ্ঠান ও কারখানায় দুই মাসের মধ্যে ব্রেস্ট ফিডিং কর্নার স্থাপনের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

একই সাথে এ আদেশ বাস্তবায়ন করে শ্রম সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের দুই মাসের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত রুলের উপর এক সম্পূরক আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের ও মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

দেশের ছয়টি রেলস্টেশনে ব্রেস্ট ফিডিং কর্নার করা হয়েছে। পাসপোর্ট অফিসগুলোতে করা হয়েছে। গার্মেন্টস কারখানাতে ব্রেস্ট ফিডিং কর্নার না হওয়ায় রিটকারী আইনজীবী ইশরাত হাসান আদালতে এ আবেদন করেন।

রিটকারী ইশরাত হাসান বলেন, অনেক কর্মস্থলে বা বাস, ট্রেন স্টেশনে ব্রেস্ট ফিডিং কর্নার না থাকায় মায়েদের ভোগান্তিতে পড়তে হয়। নিরাপদ পরিবেশের অভাবে ও যৌন হয়রানির ভয়ে মায়েরা শিশুদের বুকের দুধ পান করাতে পারেন না। অথচ একজন শিশুর মানসিক ও শারীরিক বৃদ্ধি ও পুষ্টির জন্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন মায়ের বুকের দুধ। আমার মতো হাজার হাজার মা এই সমস্যার মুখোমুখি হন।