২০১৬ সালের ২৪ এপ্রিল পাসপোর্ট সেবা সপ্তাহ উদ্বোধন শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ই-পাসপোর্ট প্রদানের ঘোষণা দেন। ঘোষণার প্রায় তিন বছর পর আগামী বুধবার (২২ জানুয়ারি) চালু হচ্ছে বহুল প্রতীক্ষিত ই-পাসপোর্ট (ইলেকট্রনিক পাসপোর্ট)। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর ই-পাসপোর্টের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রাথমিকভাবে কেবল আগারগাঁও, যাত্রাবাড়ী এবং উত্তরা পাসপোর্ট অফিসে মিলবে ই-পাসপোর্ট। পরে পর্যায়ক্রমে সর্বত্র বিতরণ করা হবে ই-পাসপোর্ট।

আসাদুজ্জামান খান কামাল আরও জানান, ‘২০২০ সালের মধ্যে দেশের সর্বত্র ই-পাসপোর্ট চালু হবে। বাংলাদেশে প্রথম ই-পাসপোর্ট পাবেন রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী। প্রতিদিন ২৫ হাজার পাসপোর্ট ইস্যু করা যাবে।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল আজ রবিবার (১৯ জানুয়ারি) সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ই-পাসপোর্ট ভবন ও ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম উদ্বোধন সংক্রান্ত প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ই-পাসপোর্ট গত বছরের জুলাইয়ের ১ তারিখ থেকে চালু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নানা কারণে সে তারিখ কয়েক দফা পিছিয়ে যায়। ই-পাসপোর্টের মেয়াদ হবে ১০ বছর।