ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের পোস্টার থেকে ২ হাজার ৫০০ টন বর্জ্য পাওয়া যাবে বলে দাবি করছে এসডো নামের একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান।

মঙ্গলবার (২৮ জানুয়ারি) এক সংবাদ সম্মেলনে এনভায়রনমেন্ট অ্যান্ড সোশ্যাল ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (এসডো) তাদের গবেষণায় পাওয়া এ তথ্য প্রকাশ করেছে। এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সংস্থাটি এ তথ্য জানায়, এছাড়া ঢাকা শহরে প্রতিবছর বিভিন্ন উৎস থেকে গড়ে প্রায় দশ হাজার টনের বেশি লেমিনেটেড প্লাস্টিকের বর্জ্য উৎপন্ন হয় যা মানবস্বাস্থ্য ও পরিবেশের জন্য হুমকিস্বরূপ।

ব্রিফিংয়ে এসডো’র চেয়ারপারসন সৈয়দ মার্গুব মোর্শেদ জানান, এসডো ঢাকা শহরের সম্ভাব্য লেমিনেটেড প্লাস্টিক বর্জ্যের প্রধান ছয়টি উৎস ধরে নিয়ে তার ওপর গবেষণা চালিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে, ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচন, খবরের কাগজের সঙ্গে দেওয়া প্রচারপত্র, ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা, অমর একুশে বইমেলা, অন্যান্য বড় পরিসরের মেলা, প্রদর্শনী, রেস্তোরাঁ, বিউটি পার্লার ও অন্যান্য বাণিজ্যিক বিজ্ঞাপনে বিতরণ করা লিফলেট।

শুধুমাত্র পোষ্টার থেকেই হবে ২৫০০ টন বর্জ্য? 1

নির্বাচনী প্রচারণায় নেমে ‘গ্রিন ঢাকা’র স্বপ্নবাজরাই ঢাকা ঢেকেছেন পলিথিনের পোস্টারে। পরিবেশবাদীরা বলছেন, যাদের হাতে পরিচ্ছন্ন ও বাসযোগ্য নগরী গড়ার দায়িত্ব যাবে, তারাই যদি নগরীর পরিবেশের ক্ষতিকর কার্যক্রমে জড়িয়ে যান, তাহলে এ নগরী রক্ষা করবে কে, পরিচ্ছন্ন রাখবে কে? এ ব্যাপারে নির্বাচন কমিশন ও সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কোনো কার্যকর পদক্ষেপ চোখে পড়ছে না বলেও অভিযোগ পরিবেশবাদী সংগঠনের নেতাদের।

এ ব্যাপারটি গড়িয়েছে আদালত অব্দিও। সারাদেশে নির্বাচন ও অন্যান্য ক্ষেত্রে পলিথিনে মোড়ানো পোস্টার ছাপা ও প্রদর্শন কেন বেআইনি নয়, তা জানতে গত ২২ জানুয়ারি রুল জারি করেন হাইকোর্ট।